আর্কাইভ

জারজ বলতেও ঘৃণা লাগে..

কতিপয় বন্ধু ঘুরতে গেছি সংসদ ভবনের সমনে। হ্যাট পড়া এক মধ্যবয়ষ্ক জ্যোতিষী ভদ্রলোক দেখে থেমে গেলাম। জিঞ্জেস করলাম, মামা হাত দেখা কত টাকা করে নেন..? ভাবগম্ভীর লোকটি বললেন ৩০ টাকা। কম কত? কম নাই। অগত্যা হাত বাড়িয়ে দিলাম জ্যোতিষীর দিকে। অনেকক্ষণে একটা চটি বই খুঁজে তিনি বললেন, তোমার রাশি মেষ। তোমার আগামী ৬ মাসের মধ্যে

বিস্তারিত

দ্বিদলীয় তত্ত্ব…

আওয়ামীলীগ একটি পরীক্ষিত যোগ্য ও বৃহৎদল, কারন আওয়ামীলীগের আছে, মুক্তিযুদ্ধের মত শ্রেষ্ঠ বিজয়ের ইতিহাস, বঙ্গবন্ধুর মত উদার, নির্ভিক, ও যোগ্য নেতৃত্বের অংশীদারিত্ব, অবশ্য সেসব ঐতিহ্যবাহী ইতিহাস আজও অনুকরনীয় । তবে প্রশ্ন তারা কি তাদের সেই অতীত ঐতিহ্য ধরে রাখতে পেরেছে? সম্ভবতঃ সন্দেহ আছে, কারন, লোকে বলছে, দিনকে দিন ভাটা পড়ছে তাদের আদর্শ, বর্ষিয়ানরা উপেক্ষিত হচ্ছেন,

বিস্তারিত

একগুচ্ছ স্বপ্ন পাগলের স্বপ্নের খেরোখাতা !

(উৎসর্গ- অত্রের সব লেখক সমীপে) আব্দুল্লাহ আবু সাইয়িদ নিত্য একটি কথার অবতারণা করে থাকেন- “ মানুষ তার আশার সমান বড়।” এই বাণীর রেশ ধরেই নিয়মিত নিজেদের বড় বলে অনুভূত হয়। উৎসাহ উদ্দীপনা যদি কিছু পাই তো এর মাঝেই নিহিত। শ্রেষ্ঠ নবী মহা মানব হজরত মুহাম্মাদ (সঃ) এর একটি কথা আছে, যা স্বীয় মনে আলোড়ন তোলার

বিস্তারিত

ভাবি প্রধানমন্ত্রী আপনাকে বলছি

ভাবি প্রধানমন্ত্রী আপনাকে বলছি, নির্বাচন নিয়ে দুই জোট যতই টালবাহানা করুক না কেন আমার মনে হয় শেষ পর্যন্ত সব দলের অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠ নির্বাচন হবে। আর নির্বাচন প্রক্রিয়া হবে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার ব্যবস্থা ও সর্বদলীয় সরকার ব্যবস্থার মাঝখান থেকে একটি নতুন ফরমুলায়। কেন কি জন্য? তার উত্তর আমার জানা…নেই। ফেব্রুয়ারী ২০১৪, দশম জাতীয় সংসদের নতুন

বিস্তারিত

সুশীল নয় ধ্বজাধারী!

যে নারী তার আপন দেহ ভাড়ায় খাটায় তাকে কি বলে সম্বোধন করা হয় আমরা সবাই জানি। কিন্তু যে তার মনন ভাড়ায় খাটান তাকে কি বলে আমি জানি না। কাজেই সম্বোধন ছাড়াই বলছি আমাদের দেশে এদের সংখ্যা এত বেড়ে গেছে যে সঠিক তথ্যটি মেলা সত্যিই ভীষণ দূরহ হয়ে পড়েছে। এমনকি এদের ভিড়ে যারা সব ধরনের মোহমুক্ত

বিস্তারিত

এরশাদ: বর্তমান বাংলাদেশের সেরা রাজনীতিবিদ

চারদিকে ব্যাপক তোলপাড় হচ্ছে, আমাদের সাবেক প্রেসিডেন্ট হোসেন মুহাম্মদ এরশাদকে নিয়ে। ওনার বিরুদ্ধে কোথাও হচ্ছে ঝাড়ু মিশিল, আবার কোথাও হচ্ছে জুতা মিশিল, কেউবা আবার থুতুর উৎসবেও মেতে উঠেছেন। আবার কেউ কেউ তাকে বঙ্গভবনে দেখে খুশিতে আটখানা। ঠোঁটের কোনে ঝুলানো হাসি দেখলেই বোঝা যাচ্ছে, হাসির নহর বইছে তাদের মনে। কেউ কেউ পারলে তো  ওনার পায়ের ধূলিই

বিস্তারিত

সর্বদলীয় চিন্তা…

আমি কি মূর্খ? যে সর্বদলীয় অর্থ কি তা বুঝব না, ধানমন্ডিতে যেমন ধান নেই, কলাবাগানে কলা, কাঁঠালবাগানে কাঁঠাল, হাতিরঝিলে হাতি? আমিতো রোজ অফিসে যাই রাজারবাগের পার্শ্ব দিয়ে, সেখানে কোনো রাজার দেখা মেলে না বটে, তবে একটু পরেই ফকিরাপুল, সেখানে অবশ্য ফকির আছে, পুল নেই, কিংবা ওরকম ফকিরতো সব স্থানেই আছে, কোন ফকির ঝাড়ফুঁক দেয়, কেউ

বিস্তারিত

এবার বেসরকারি কোম্পানিতে গ্রাজুয়েটদের জন্য সরকার কর্তৃক নূন্যতম বেতন কাঠমো ঘোষণা করা হোক

  আমাদের দেশে দিনদিনই সরকারি চাকুরী দুঃসাধ্য হয়ে পড়ছে। একে কোটা পদ্ধতি অন্যদিকে ঘুষ এই দুয়ের সংমিশ্রণে সরকারি চাকুরী কিছু আলাদা শ্রেনীর মানুষের চাকুরী বলেই গণ্য হচ্ছে । তাই সাধারন মানুষের ক্ষেত্রে এই চাকুরী এখন অনেকটাই দুস্প্রাপ্য। বাধ্য হয়ে বেকার যুবকেরা ঝুঁকছে বেসরকারি চাকুরীর উপর। বেসরকারি চাকুরীগুলোর উপর এই চাহিদার ভারও আজ অনেক বেশি ।

বিস্তারিত

নৈরাজ্যের শুরু বা শেষ কোথায়!

এটা সবাই জানে দেশে এখন চরম উত্তেজনা চলছে। শুধু নির্দিষ্ট কোন ব্যাক্তি বা দলের মাঝে সীমাবদ্ধ নয় এটা। গোটা দেশজুড়ে/রাষ্ট্রের প্রতিটি মানুষের মাঝেই চলছে চরম আতংক উত্তেজনা। পথ ঘাট মাঠে ময়দানে বাড়ির ভেতরে ঘরের মাঝেও চলছে চরম উত্তেজনা। সেটা মানসিকভাবেই বেশিটা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। মানুষগুলি একটু শান্তির জন্য পথ খুঁজতে গিয়ে অশান্তিভরা হৃদয়ে প্রতিটি মুহুর্তেই

বিস্তারিত

মাদককে না বলুন সবখানে সবসময়, মাদক নিয়ে হোক মুক্ত আলোচনা

মাদক বাংলাদেশের জাতীয় জীবনের সমস্যাগুলোর অন্যতম একটি সমস্যা। মাদকাসক্তি সমাজ জাতির পঙ্গুত্ব বরণের অন্যতম কারণ। আসুন মাদক সম্পর্কে জানি এবং মুক্ত আলোচনা করি।মাদক কি? মাদক দ্রব্য হলো একটি ভেষজ দ্রব্য যা ব্যবহারে বা প্রয়োগে মানবদেহে মস্তিস্কজাত সংজ্ঞাবহ সংবেদন হ্রাসপায় এবং বেদনাবোধ কমায় বা বন্ধ করে। মাদক দ্রব্যের বেদনানাশক ক্রিয়ার সাথে যুক্ত থাকে তন্দ্রাচ্ছন্নতা, আনন্দোচ্ছাস, মেজাজ

বিস্তারিত

শিশুদের বিনোদন: বাংলাদেশে শিশুদের জন্য একটি চ্যানেল- একটু ভেবে দেখবেন কি?

 আজকের শিশুই আগামী দিনের ভবিষ্যত। তাই সেই শিশুদের নিয়ে আয়োজনেরও শেষ নেই। শহর ঘুরলেই চোখে পড়বে শিশুদের পোশাকের নানা রকম দোকান, তাদের খেলনা- পাতির দোকান, বড় বড় হাই সোসাইটির শিশুপার্ক, স্কুল, গান শেখার কোচিং, এটা সেটা আরও কত কি! কিন্তু সত্যিকার অর্থে শিশুদের বিনোদন নিয়ে আসলেই কি কেউ ভাবছে? শিশুদের খেলার জন্য এখন আর খেলার

বিস্তারিত

একটি বর্বরোচিত হত্যাকান্ড ঘিরে ঈদগাঁও’র সিন্ডিকেট সাংবাদিকতা!

কক্সবাজার সদরের ইসলামাবাদের ইউছুপেরখীলে গত ১০ অক্টোবর একটি নৃশংস হত্যাকান্ড সংগঠিত হয়। চোর সন্দেহে ভিলেজার পাড়ার রিক্সা চালক আহমদ উল্লাহকে ৯ অক্টোবর রাতের আঁধারে বেধড়ক পেটায় উচ্ছৃংখল জনতা। ১০ অক্টোবর ভোরে অমানুষিক নির্যাতনের মাত্রা আরও বাড়ে। ঘটনা শুনে সকাল ৮ টায় স্থানীয় মেম্বার তাকে হাসপাতালে নেন। ডাক্তার দেখেন ততক্ষণে আহমদ উল্লাহর দেহে প্রাণ পাখি নেই!

বিস্তারিত

অবশেষে তাঁরা ‘মিঊ’ পলিটিশিয়ান…

বড় দুই দলকে জাতীয় স্বার্থে সমঝোতায় আসতে হবে। এটা সবাই চায়। আমিও চাই, তবে পঞ্চান্ন হাজার বর্গমাইলের এই দেশে পঞ্চান্ন লক্ষ সমস্যা আছে, তা সমাধানে এখন আর লাল টেলিফোনে গুতিয়ে কোন লাভ নেই, এখন ইন্টারনেট, স্কাইপি, গুগল, লিংকডিন, ফেসবুক, ই-মেইল, জি-মেইল, ইয়াহু, টুইটার, ব্লগ, থ্রী-জি, ফোর-জি, এসএমএস, এমএমএস, নিয়ে ভাবতে হবে, আর শুধু দুই নেত্রী

বিস্তারিত

রাজনীতি একঘরে হয়ে পড়ছে!

আমাদের দেশের রাজনীতির একটা স্বর্ণযুগ ছিল। রাজনীতি বলতে মানুষ দেশপ্রেমিকতাই বুঝত। একজনের ডাকে ঘর থেকে বের হত। একটা সম্মিলিত সামষ্টিক শক্তির নাম ছিলো রাজনীতি। আর এ সামষ্টিক রাজনৈতিক শক্তির কারণেই আমরা পেয়েছি আমাদের মাতৃভাষা এবং মহান স্বাধীনতা। এমন একটি সামষ্টিক শক্তি আজ আমাদের দেশে অনীহার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। সাধারণ মানুষ রাজনীতিকে ভয় করছে,ঘৃণা করছে। রাজনৈতিক

বিস্তারিত

আশান্বিত হওয়ার কোন কারণ নেই!

এরশাদ, কাদের সিদ্দিকীসহ কয়েকজন নেতার বি চৌধুরীর বাসভবনে মিলিত হওয়ার ঘটনায় মহাজোট এবং ১৮ দলীয় জোটের বাইরে একটি বিকল্প জোট তৈরী হচ্ছে বলে অনেকেই আশান্বিত হয়েছেন। এই আশান্বিত হওয়ার পেছনে যৌক্তিকতা কতটা তা আলোচনা সাপেক্ষ। তবে মানুষের এই আশান্বিত হয়ে ওঠা যে তাদের আকাঙ্ক্ষারই প্রতিফলন তা বলার অপেক্ষা রাখে না। আমাদের বড় দুই দলের মাত্রাতিরিক্ত

বিস্তারিত

নেতারা দেশ ও দেশের মানুষকে ভালোবাসবে না! তবে আসুন আমরা বদলে যাই

মানুষের মনুষত্ব তথা বিবেক জ্ঞান বুদ্ধি আছে বলেই আমরা মানুষ। তবে মানুষেরে মধ্যে আবার জাত ধর্ম ও বর্ণ আছে। যাই থাকুক না কেন আমরা সবাই মানুষ। আমরা মানুষ হিসেবেই বাঁচতে চাই। তিউনিশিয়া থেকে শুরু করে মিশর, লিবিয়া, সিরিয়া, ও আরো অন্যান্য দেশে যে ঘটনা ঘটেছে বা ঘটিতেছে তা সবই মানুষেরে বিবেক বুদ্ধির ফলাফল। বাংলাদেশ একটি

বিস্তারিত

“আমাদের দাবি মানতে হবে”

প্রধানমন্ত্রীর নিকট দাবি:সকল দলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও সকলের কাছে গ্রহনযোগ্য নির্বাচনের স্থায়ী সমাধানের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এর জন্য যা যা পদক্ষেপ গ্রহণ করার প্রয়োজন, তার প্রয়োজনীয় সকল ব্যবস্থা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে গ্রহণ করতে হবে। কোন অজুহাতেই এর কোনো ব্যাতিক্রম করা যাবে না। বিরোধীদলীয় নেত্রীর নিকট দাবি: জনগণের জান-মালের ক্ষয়-ক্ষতি হয়, এমন কোনো কর্মসূচী,

বিস্তারিত

‘বলির পাঁঠা জনগণ’

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের রাজনীতিতে পাওয়া যাচ্ছে সেচ্ছানীতির চর্চা। অতীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তত্বাবধায়কের দাবী তুলে যতদিন হরতাল করেছিলেন- অতগুলো দিনেও বুঝে উঠতে পারেনি যে, তাদের জেল খাটতে হতে পারে, একথা আজ মনে পড়েছে। এ যেন আহলাদে বাচ্চার – মা  তার বাচ্চাকে কলা খেতে বললে- বাচ্চা দাবী করলো কলা ছুলে দাও,-যখন ছুঁলে দিল তখন বললো অতে ছুলে

বিস্তারিত

নাদিরার মোবাইল নম্বর টি বদলে ফেলেছে (!)

২১-২২ বয়সের মেয়ে নাদিরা ভালোবেসে বিয়ে করেছে তারই বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন বড় ভাইকে। সংসারটা শুরুর দিকে ঠিকঠাক মতোই চলছিল। কিন্তু একসময় স্বামীর ব্যস্ত জীবন নাদিরাকে অসহ্য করে দিল! সাথে সাথে স্বামীও বিরক্ত! নানা রকম মতপর্থক্যেভরা জীবনে নাদিরা রীতিমতো হাঁপিয়ে উঠেছে। স্বামীর বেলায়ও তাই। ততদিনে তারা একই ছাদের নীচে বসবাস করছেন। কিন্তু এরই মধ্যে নাদিরার মধ্যে স্বামীর

বিস্তারিত

ধূমপান বিরোধী আইন বনাম বাস্তবতা

প্রতি বছর ৩১ মে “বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস” ঢাকঢোল পিটিয়ে পালন করা হলেও ধূমপান বিরোধী আইনের সঠিক বাস্তবায়নের অভাবে বাংলাদেশে ধূমপায়ীর সংখ্যা প্রতিবছর আশংকাজনক হারে বাড়ছে। ধূমপান বিরোধী বিভিন্ন সংগঠনের দীর্ঘদিনের দাবি ও আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে বর্তমান সরকার ধুমপান বিরোধী আইনকে আরও জনমুখী করে সংশোধন আনেন। যা গত এপ্রিল মাসের ২৯ তারিখ সংসদে পাশ হয়। সংশোধিত আইনে প্রকাশ্য

বিস্তারিত

পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস হয়ে যাচ্ছে, কর্তৃপক্ষ কি নির্বিকার ?

দেশের সামগ্রিক অবস্থাই খারাপ। চারিদিকে সহিংসতা। মানুষে মানুষে কেমন যেন বিভেদ তৈরি হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু এই অবস্থা থেকে তো আমাদের বের হতে হবে। যে বিষয়টি মানুষের মধ্যে মনুষত্ববোধ তৈরি করে সেটি হল ‘শিক্ষা’। এই শিক্ষার মধ্যেও এখন ব্যাপক দুর্নীতিগ্রস্থতা। প্রায় প্রতিটি পরীক্ষার প্রশ্নই ফাঁস হয়ে যাচ্ছে। গতবার এসএসসি পরীক্ষার সময়ে এ বিষয় নিয়ে একটা লেখাও

বিস্তারিত

বাংলার টাইগার উডস…

ব্যায়বহুল খেলাগুলোর মধ্যে গলফ একটি। এ খেলা কিভাবে খেলতে হয় বা এর নিয়ম কানুন-ই বা কী অনেকেই তা জানেনা। আর আমাদের দেশের যেখানে নিরক্ষরদের সংখ্যা জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক,অধিকাংশই বাস করে দারিদ্র্যসীমার নীচে তাদের পক্ষে এসবের খোজ খবর রাখার তো প্রশ্নই আসে না। ফুটবল প্রাচীন খেলা বলে দাদা নানারাও এর সম্পর্কে মোটামুটি অবগত আর ক্রিকেটের অতিমাত্রিক

বিস্তারিত

সাহসিকতার প্রাপ্তি কি শুধু একটি দিবস ?

বাংলাদেশের গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য এই ১০ই নভেম্বর একটি উল্লেখযোগ্য দিন হিসাবে পালিত হয় । এই দিনে নূর হোসেন বুক চিতিয়ে দিয়ে গণতন্ত্র মুক্তি পাক অঙ্কিত দেহ পুলিশের গুলির সামনে মেলে ধরেছিলেন। হাজারো মানুষ সে আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেছিলো শুধু আমাদের গণতন্ত্র রক্ষার জন্য। নূর হোসন সেদিন শহীদ হন। তাঁর সাথে আরো কয়েকজন। রক্ত দিয়ে অর্জনে অভ্যস্থ

বিস্তারিত

বদলানো সম্ভব অনেক কিছু

বাবা মার বড় আদরের সন্তান স্বাধীন (ছদ্ম নাম)। বাবার টাকা পয়সার অভাব নেই। তাই স্বাভাবিক ভাবেই যখন যেটা প্রয়োজন বলার আগেই পেয়ে যায় সে। বন্ধুদের সাথে খেলাধুলা হৈ হুল্লোর করে আর দশটা ছেলের মতো ভালোই চলছিলো স্বাধীনের জীবন। কিন্ডার গার্ডেনের পাঠ চুকিয়ে স্কুল, এরপর কলেজ। কিন্তু কৈশরে প্রবেশের প্রাথমিক ধাক্কাটা সামলাতে পারলো না স্বাধীন। ৮

বিস্তারিত

আগুনে আঙ্গার লাশ! এমন হচ্ছে কেন?

গাজীপুরে পলমল গ্রুপের আসওয়াদ কম্পোজিট মিলে আগুনে পুড়ে অঙ্গার হয়েছে আরও ৯জন হতভাগ্য গামের্ন্টস শ্রমিক। গত বছরের নভেম্বরে সাভারের আশুলিয়ার নিশ্চিনত্মপুরে তাজরীন ফ্যাশনসে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ১১২ জন শ্রমিক পুড়ে আঙ্গার হওয়ার বছর না পেরোতেই গাজীপুরের এ কারখানায় (৮ অক্টোবর) আগুনে পুড়ে মরারর ঘটনা ঘটে। ৬ মাস আগে গত এপ্রিলে সাভারের রানা প্লাজা ধসে সহস্রাধিক গার্মেন্টস

বিস্তারিত


  • Page 6 of 141 
  •   
  • <
  •   
  • 1
  •  
  • 2
  •  
  • 3
  •  
  • 4
  •  
  • 5
  •  
  • 6
  • 7
  •  
  • 8
  •  
  • 9
  •  
  • 10
  •  
  • 11
  •  
  • 12
  •  
  • 13
  •  
  • 14
  •  
  • 15
  •   
  • >
  •  
  • >>
  • © বদলে যাও, বদলে দাও!