Home » অন্যান্য » ক্রিকেট বিশ্বে নতুন পরাশক্তি বাংলাদেশ! (৩য় পর্ব)

ক্রিকেট বিশ্বে নতুন পরাশক্তি বাংলাদেশ! (৩য় পর্ব)

302 বার পঠিত

(পূর্ব প্রকাশের পর )

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিনটি ফরম্যাট: টেস্ট, ওয়ানডে, টুয়েণ্টি টুয়েণ্টির প্রত্যেকটিতে ভাল ফলাফল করতে হলে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় ও মূল একাদশ নির্বাচনে নির্বাচক কমিটিকে বিচক্ষণতার পরিচয় দিতে হবে। যে খেলোয়াড় যে ফরম্যাটের জন্য উপযুক্ত তাকে সে ফরম্যাটের দলে নিতে হবে। ব্যস্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সূচী, বিভিন্ন দেশে চালু হওয়া ক্রিকেটীয় বিনোদন টি টুয়েন্টি লীগ, ঘরোয়া ক্রিকেটেসহ একজন খেলোয়াড়কে বিভিন্ন স্তরে অনেক ম্যাচ খেলতে হয়। এতে করে ফিটনেস ধরে রাখা কঠিন বিষয়। এ জন্য খেলোয়াড়দের রোটেশন পলিসির মাধ্যমে খেলিয়ে প্রয়োজনীয় বিশ্রাম দেওয়া যেতে পারে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ফিউচার প্রোগ্রামের দিকে তাকালে দেখা যায় বিতর্কিত পাকিস্তান সফর ব্যাতীত সেপ্টেম্বরে শ্রীলংকায় অনুষ্ঠিতব্য আইসিসি টুয়েণ্টি টুয়েণ্টি বিশ্বকাপের আগে টাইগারদের আর কোন খেলা নেই। এদিকে প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগও বিতর্কের জের ধরে বন্ধ! দলের একাদশ নির্বাচন ও কম্বিনেশন প্রভৃতি নিয়ে ধারাবাহিক এ আলোচনায় টুয়েণ্টি টুয়েণ্টির দল নিয়ে প্রথমেই আলোচনা করা যাক।

এবারের বিপিএল , এশিয়া কাপ ও ঘরোয়া প্রিমিয়ার লীগে খেলা অভিজ্ঞতা নিয়ে টাইগাররা এই বিশ্বকাপে খেলতে যাবে। তবে আশার কথা বিশ্বসেরা অলরাউণ্ডার সাকিব আল হাসান ও তারকা ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল আইপিএলে খেলতে এখন ভারতে। এ টূর্ণামেন্ট থেকে অর্জিত বিশাল অভিজ্ঞতা তারা কাজে লাগাতে পারবেন বলে আমার বিশ্বাস। টুয়েণ্টি টুয়েণ্টি বিশ্বকাপে ডি গ্রুপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শক্তিশালী পাকিস্তান ও ডাক হর্স নিউজিল্যাণ্ড (ব্ল্যাক ক্যাপসরা)। সেপ্টেম্বরের ২১ ও ২৫ তারিখে বাংলাদেশ যথাক্রমে কিউয়ি ও পাকদের মোকাবেলা করবে। খেলা হবে পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে।

দলের নাম ম্যাচ জয় পরাজয় টাই পরিত্যক্ত জয়/পরাজয়
দ: আফ্রিকা ৪৪ ২৯ ১৫ ০ ০ ১.৯৩
পাকিস্তান ৫৩ ৩২ ২০ ১ ০ ১.৬০
শ্রীলংকা ৩৮ ২৩ ১৫ ০ ০ ১.৫৩
ইংল্যাণ্ড ৪৪ ২৩ ১৯ ০ ২ ১.২১
অস্ট্রেলিয়া ৪৯ ২৫ ২২ ১ ১ ১.১৩
ভারত ৩৪ ১৭ ১৫ ১ ১ ১.১৩
নিউজিল্যাণ্ড ৫০ ২৪ ২৩ ৩ ০ ১.০৪
ওয়েস্ট ইণ্ডিজ ৩৫ ১৪ ১৯ ২ ০ ০.৭৩
বাংলাদেশ ১৮ ৪ ১৪ ০ ০ ০.২৮
জিম্বাবুয়ে ২০ ৩ ১৬ ১ ০ ০.১৮

টেস্ট খেলুড়ে দেশসমূহের টি টুয়েণ্টি রেকর্ড

২০০৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত বাংলাদেশ মোট ১৮ টি আন্তর্জাতিক টি টুয়েণ্টি খেলে কেনিয়ার বিপক্ষে ১ টি, খর্বশক্তির ওয়েস্ট ইণ্ডিজের বিপক্ষে ২ টি ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১ টি সহ মোট ৪ টিতে জয় পেয়েছে। ক্রিকেটের এ সংক্ষিপ্ততম সংস্করণে টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোর মধ্যে পাকিস্তান সবচেয়ে সফল। ১ বার চ্যাম্পিয়ন ও ১ বার রানার্সআপ হওয়া এ দলটি ৫৩ ম্যাচ ৩২ টি জয় পেয়েছে। উপরের চার্ট থেকে দেখা যাচ্ছে জয়/পরাজয়ের হিসেবে দ: আফ্রিকা শীর্ষে, ২০১০ এর টি টুয়েণ্টি চ্যাম্পিয়ন ইংল্যাণ্ড ৪র্থ ও ২০০৭ এর বিজয়ী ভারত ৬ষ্ঠ স্থানে আছে। আর টাইগারদের অবস্থান নবমে।

বাংলাদেশ: ম্যাচ ১৮ মোট খেলা খেলোয়াড়ের সংখ্যা ২৯ খেলোয়াড়/ম্যাচ ১.৬১

ওয়েস্ট ইণ্ডিজ: ম্যাচ ৩৫ মোট খেলা খেলোয়াড়ের সংখ্যা ৫৫ খেলোয়াড়/ম্যাচ ১.৫৭

জিম্বাবুয়ে: ম্যাচ ২০ মোট খেলা খেলোয়াড়ের সংখ্যা ৩১ খেলোয়াড়/ম্যাচ ১.৫৫

ইংল্যাণ্ড: ম্যাচ ৪৪ মোট খেলা খেলোয়াড়ের সংখ্যা ৫৯ খেলোয়াড়/ম্যাচ ১.৩৪

ভারত: ম্যাচ ৩৪ মোট খেলা খেলোয়াড়ের সংখ্যা ৪১ খেলোয়াড়/ম্যাচ ১.২০

অস্ট্রেলিয়া: ম্যাচ ৪৯ মোট খেলা খেলোয়াড়ের সংখ্যা ৫৭ খেলোয়াড়/ম্যাচ ১.১৬

দ: আফ্রিকা: ম্যাচ ৪৪ মোট খেলা খেলোয়াড়ের সংখ্যা ৫১ খেলোয়াড়/ম্যাচ ১.১৬

নিউজিল্যাণ্ড: ম্যাচ ৫০ মোট খেলা খেলোয়াড়ের সংখ্যা ৫৪ খেলোয়াড়/ম্যাচ ১.০৮

শ্রীলংকা: ম্যাচ ৩৮ মোট খেলা খেলোয়াড়ের সংখ্যা ৪১ খেলোয়াড়/ম্যাচ ১.০৭

পাকিস্তান: ম্যাচ ৫৩ মোট খেলা খেলোয়াড়ের সংখ্যা ৪৬ খেলোয়াড়/ম্যাচ ০.৮৬

টেস্ট খেলুড়ে দেশসমূহের টি টুয়েণ্টি খেলা খেলোয়াড়দের সংখ্যা

চার্ট থেকে দেখা যায় বাংলাদেশের খেলা ১৮ টি ম্যাচে ২৯ জন খেলোয়াড় খেলেছেন যা ম্যাচপ্রতি সর্বোচ্চ। আর যে সকল দল এ ফরম্যাটে সফল তাদের অবস্থান নিচের দিকে। শ্রীলংকা ও পাকিস্তান এ তালিকায় যথাক্রমে ৮ম ও সর্বশেষ স্থানে আছে। এতে স্পষ্ট প্রতীয়মান যে, ঘন ঘন দল পরিবর্তন ও নতুন খেলোয়াড়দের অন্তর্ভূক্তি দলীয় পারফরম্যান্সের উপর প্রভাব ফেলে। আর এ বিষয়টিও থিংক ট্যাংকের বিবেচনায় রাখা উচিত।

(চলবে)

মোঃ মুজিব উল্লাহ: mdmujib_ullah@yahoo.com

পূর্ববর্তী পর্বগুলোর লিংক:
www.bodlejaobodledao.com/archives/14270
www.bodlejaobodledao.com/archives/14534

© বদলে যাও, বদলে দাও!